সিজার ছাড়াই একসঙ্গে ৪ সন্তানের জন্ম দিলেন নিপা

0
585

চাঁদপুরে বিয়ের ছয় বছর পর একসঙ্গে ১ পুত্র সন্তান ও ৩ কন্যাসন্তানের জন্ম দিয়েছেন নিপা রানী সরকার (২৫) নামে গৃহবধূ। বুধবার সকালে চাঁদপুর শহরের প্রিমিয়ার হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নরমাল ডেলিভারির মাধ্যমে এই ৪ নবজাতক ভূমিষ্ঠ হয়।

নিপা সরকার চাঁদপুর শহরের ঘোষপাড়ার ব্যবসায়ী লিটন সরকারের স্ত্রী। গত ছয় বছর পূর্বে তিনি বিয়ে করেন।

নিপার জেঠি মা মুক্তা রানী শীল বলেন, সকালে প্রসব ব্যথা শুরু হলে আমরা এই হাসপাতালে নিয়ে আসি। হাসপাতালের সিনিয়র নার্স নমিতা সরকার ডেলিভারি কাজটি সম্পন্ন করেন। মা সুস্থ আছেন। তবে নবজাতকদের চিকিৎসকরা পর্যবেক্ষণে রেখেছেন।

হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার মিঠুন চক্রবর্তী বলেন, নিপা রানী সরকারকে সকাল ৮টার দিকে আমাদের হাসপাতালে নিয়ে আসেন স্বজনরা। আসার পর আমরা সব কিছু দেখে এবং পরীক্ষা করে বুঝলাম তার এখনই ডেলিভারি হবে। যে কারণে আমরা ওটিতে নিয়ে যাই। সেখানে পরপর ১ পুত্র সন্তান এবং ৩ কন্যাসন্তান ভূমিষ্ঠ হয়।

তিনি আরও বলেন, নিপা রানী সুস্থ আছেন কিন্তু নবজাতকদের অবস্থা অনেকটা আশঙ্কাজনক বলা যায়। কারণ ২৯ সপ্তাহ পর ডেলিভারি হওয়ায় আমরা আমাদের হাসপাতালের ইনকিউবিটরে রেখেছি।সিজার ছাড়াই একসঙ্গে ৪ সন্তানের জন্ম দিলেন নিপা

চাঁদপুরে বিয়ের ছয় বছর পর একসঙ্গে ১ পুত্র সন্তান ও ৩ কন্যাসন্তানের জন্ম দিয়েছেন নিপা রানী সরকার (২৫) নামে গৃহবধূ। বুধবার সকালে চাঁদপুর শহরের প্রিমিয়ার হাসপাতাল অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নরমাল ডেলিভারির মাধ্যমে এই ৪ নবজাতক ভূমিষ্ঠ হয়।

নিপা সরকার চাঁদপুর শহরের ঘোষপাড়ার ব্যবসায়ী লিটন সরকারের স্ত্রী। গত ছয় বছর পূর্বে তিনি বিয়ে করেন।

নিপার জেঠি মা মুক্তা রানী শীল বলেন, সকালে প্রসব ব্যথা শুরু হলে আমরা এই হাসপাতালে নিয়ে আসি। হাসপাতালের সিনিয়র নার্স নমিতা সরকার ডেলিভারি কাজটি সম্পন্ন করেন। মা সুস্থ আছেন। তবে নবজাতকদের চিকিৎসকরা পর্যবেক্ষণে রেখেছেন।

হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার মিঠুন চক্রবর্তী বলেন, নিপা রানী সরকারকে সকাল ৮টার দিকে আমাদের হাসপাতালে নিয়ে আসেন স্বজনরা। আসার পর আমরা সব কিছু দেখে এবং পরীক্ষা করে বুঝলাম তার এখনই ডেলিভারি হবে। যে কারণে আমরা ওটিতে নিয়ে যাই। সেখানে পরপর ১ পুত্র সন্তান এবং ৩ কন্যাসন্তান ভূমিষ্ঠ হয়।

তিনি আরও বলেন, নিপা রানী সুস্থ আছেন কিন্তু নবজাতকদের অবস্থা অনেকটা আশঙ্কাজনক বলা যায়। কারণ ২৯ সপ্তাহ পর ডেলিভারি হওয়ায় আমরা আমাদের হাসপাতালের ইনকিউবিটরে রেখেছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here