‘শ্রীলংকা হওয়া’ থেকে বেশি দূরে নয় পাকিস্তান : ইমরান খান

0
138

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী এবং তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খান বলেছেন, তার দেশ শ্রীলংকার মতো পরিস্থিতিতে পড়া থেকে খুব বেশি দূরে নেই।

মানুষ শিগগিরই মাফিয়াদের দুর্নীতি ও লুটপাটের বিরুদ্ধে রাস্তায় নেমে আসবে। গতকাল শনিবার নিজের মাইক্রো ব্লগিং সাইট টুইটারে এ মন্তব্য করেন তিনি।

ইমরান বলেন, আসিফ আলী জারদারি ও শরিফ পরিবারের নেতৃত্বাধীন মাফিয়ারা নিজেদের অবৈধ সম্পদ বাঁচাতে মাত্র তিন মাসের মধ্যে পাকিস্তানকে রাজনৈতিক-অর্থনৈতিকভাবে নতজানু করে ফেলেছে। তাদের একমাত্র উদ্দেশ্য, ৩০ বছর ধরে লুট করে যে সম্পদ জমিয়েছে তা রক্ষা করা। আমার প্রশ্ন, সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলো আর কত দিন ধরে এমন কাজ মেনে নেবে।

২০১৮ সালে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন ইমরান। মেয়াদপূর্তির আগেই তার সরকারের পতন হয়। গত ৯ এপ্রিল পাকিস্তানের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ জাতীয় পরিষদে বিরোধী জোটের আনা অনাস্থা ভোটে হেরে ক্ষমতাচ্যুত হয় ইমরানের নেতৃত্বাধীন পিটিআই সরকার।

ইমরানের বিদায়ের পর বিরোধীরা জোট সরকার গঠন করে। নতুন সরকারের প্রধানমন্ত্রী হন পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) সভাপতি শাহবাজ শরিফ। দেশটির বর্তমান ক্ষমতাসীন জোটের অংশ জারদারির পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি)।

ইমরান বলেন, তারা এই মাফিয়াদের লুটপাট চালিয়ে যেতে দেবেন না। ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর থেকে আগাম নির্বাচনের দাবি জানিয়ে আসছেন ইমরান। তবে এই দাবি নাকচ করেছে শাহবাজের নেতৃত্বাধীন জোট সরকার। আগামী বছরের আগস্ট পর্যন্ত মেয়াদ পূর্ণ করেই জাতীয় নির্বাচন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জোট সরকারের শরিকেরা।

সম্প্রতি উপনির্বাচনে বিপুল জয়ের পরও আইনসভার ডেপুটি স্পিকারের বিতর্কিত রায়ে পাঞ্জাব প্রদেশের ক্ষমতা দখল করতে পারেনি ইমরানের দল। এ পরিস্থিতিতে শনিবার ক্ষমতাসীন পাকিস্তান মুসলিম লিগ নওয়াজ (পিএমএল-এন) এবং পাকিস্তান পিপলস পার্টির জোটের বিরুদ্ধে সরব হন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী। মূলত বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফের পরিবার এবং সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারিকে লক্ষ্য করেই এসব কথা বলেন ইমরান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here