শোক দিবসে নোয়াখালী আ.লীগ কার্যালয়ে তালা

0
315

মানুষের জন্য ডেস্ক: ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে তালা ঝুলতে দেখা গেছে নোয়াখালীর জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের ফটকে। এ নিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে আসা নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন নেতাকর্মীরা।

আজ রোববার দুপুর সাড়ে ১২টায় জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে বক্তব্য দেওয়ার সময় এ অভিযোগ করেন সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট শিহাব উদ্দিন শাহীন।

শিহাব উদ্দিন শাহীন বলেন, আজ শোকের দিন। রাজনৈতিক দল ছাড়াও সাধারণ মানুষেরও অধিকার রয়েছে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর। কিন্তু কার্যালয়ে তালা মারা হয়েছে। সেই ছবি যখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে, তখন তারা আবার কার্যালয় খুলে দেয়।

কর্মীদের উদ্দেশে শিহাব উদ্দিন শাহীন বলেন, ‘এটা কিসের আলামত? নোয়াখালী আওয়ামী লীগ কোনো বিশেষ ব্যক্তির আওয়ামী লীগ নয়। নোয়াখালী আওয়ামী লীগ কোনো ব্যক্তির অনুকম্পায় চলে না। নোয়াখালী আওয়ামী লীগ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আওয়ামী লীগ, নোয়াখালী আওয়ামী লীগ শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ। নোয়াখালীর অভিভাবক আমাদের নেতা ওবায়দুল কাদের। জাতীয় শোক দিবসে কেন নোয়াখালী আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে তালা? এই বিচার আমাদের মাতৃতুল্য নেত্রী শেখ হাসিনার কাছে দিলাম। আমরা জানতে চাই কে এই লোক? এখন আর তার আমাদের দল করার দরকার নাই।’

এদিকে, নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের প্রধান ফটকে তালা ঝুলানো অবস্থায় পুলিশি পাহারার কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তা মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ খায়রুল আনম সেলিম বলেন, শোক দিবসে মসজিদে মসজিদে জিলাপি বিতরণ করতে অফিসে থাকা নেতাকর্মী ও লোকজন সকালে বের হয়ে গিয়েছিল। তারা যাওয়ার সময় তখন কার্যালয়ের গেটে তালা দিয়ে যায়। জিলাপি বিতরণ শেষে আবার কার্যালয়ের তালা খুলে দেওয়া হয়েছে। আমাদের দলীয় কার্যালয় অল্প কিছুক্ষণ বন্ধ ছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here