মাঙ্কিপক্স নিয়ে বিশ্বব্যাপী জরুরি অবস্থা ঘোষণা ডব্লিউএইচওর

0
147

মানুষের জন্য ডেস্ক: মাঙ্কিপক্স ভাইরাস নিয়ে বিশ্বব্যাপী জরুরি স্বাস্থ্য সতর্কতা জারি করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। আজ শনিবার ডব্লিউএইচও এ সতর্কতা জারি করেছে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনবিসি জানিয়েছে, ডব্লিউএইচও তাদের সতর্ক বার্তায় বলেছে বিশ্বব্যাপী মাঙ্কিপক্সের বিস্তার আন্তর্জাতিক উদ্বেগের পাশাপাশি জরুরি স্বাস্থ্য সতর্কতার পরিস্থিতি তৈরি করেছে। সারা বিশ্বের সরকারগুলো ক্রমবর্ধমান প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রণে কঠোরভাবে চেষ্টা চালালেও ভাইরাসটি আরও ছড়িয়ে পড়ার সুস্পষ্ট ঝুঁকি রয়েছে।

ডব্লিউএইচও’র পক্ষ থেকে এটিই সর্বোচ্চ সতর্কতা বার্তা। ২০০৭ সালে সংস্থাটি চালুর পর থেকে ইবোলা, জিকা, কোভিড-১৯, পোলিওসহ মাত্র ছয়টি রোগের প্রাদুর্ভাবের জন্য এ ধরনের সতর্কতা জারি করেছে তারা।

এর আগে, গত মাসে ডব্লিউএইচও প্রধান তেদ্রস আধানম গ্যাব্রিয়েসুস বলেছিলেন, তিনি মাঙ্কিপক্সকে ‘গুরুতর উদ্বেগ’ হিসেবে দেখলেও জরুরি সতর্কতা জারির মতো ভাবছেন না। তবে তিনি জানিয়েছেন, গত বৃহস্পতিবার প্রাদুর্ভাবের বিষয়ে বিশেষজ্ঞ কমিটির সঙ্গে আলোচনার পর নিজের মত বদলেছেন।

মাঙ্কিপক্স প্রাদুর্ভাব আসলেই জরুরি স্বাস্থ্য সতর্কতা জারির পর্যায়ে পৌঁছেছে কি-না, ডব্লিউএইচও বিশেষজ্ঞ কমিটি সে বিষয়েেএকমত হতে পারেনি। তবু জরুরি স্বাস্থ্য সতর্কতা ঘোষণা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ডব্লিউএইচও প্রধান। তিনি বলেছেন, ‘সংক্ষেপে বললে, আমাদের একটি প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে, যা বিশ্বজুড়ে দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে।’

মাঙ্কিপক্স এমন একটি ভাইরাস, যা প্রাণী থেকে মানুষের মধ্যে সংক্রামিত হয়। এর উপসর্গ গুটিবসন্তের মতো হলেও ক্লিনিক্যালি কম গুরুতর। মাঙ্কিপক্সে আক্রান্ত ব্যক্তিদের উপসর্গের মধ্যে আছে- মুখ ও হাতের তালুতে ক্ষত বা গুটি, খোসপাঁচড়া, জ্বর, পেশিতে ব্যথা এবং ঠাণ্ডা লাগা। আক্রান্তদের বেশিরভাগ কয়েক সপ্তাহের মধ্যে সুস্থ হয়ে ওঠেন। তবে, কিছু ক্ষেত্রে মাঙ্কিপক্স মারাত্মক হতে পারে, যদিও তা বিরল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here