Saturday, February 24, 2024
Homeস্পটলাইটফেসবুকে এমপি মমতাজের এ কেমন পোস্ট!

ফেসবুকে এমপি মমতাজের এ কেমন পোস্ট!

মানিকগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য কণ্ঠশিল্পী মমতাজ বেগম তার ফেসবুক আইডি থেকে একটি পোস্ট দিয়েছেন। এই পোস্টকে ঘিরে সিংগাইর তথা মানিকগঞ্জে সরকারদলীয় রাজনৈতিক অঙ্গনে উত্তপ্ত অবস্থা বিরাজ করছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এমপি মমতাজের পোস্টটি ভাইরাল হলে রাতেই ওই পোস্টটি ফেসবুক আইডি থেকে প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়। এ নিয়ে তার নির্বাচনি এলাকায় রাজনৈতিক নেতাকর্মী থেকে শুরু করে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের মধ্যে তোলপাড় শুরু হয়েছে।

পোস্টে তিনি লেখেন- ‘এই শয়তানের বাচ্চা যখন পার্টির দায়িত্বে ছিল তখন হাতে-পায়ে ধরেও কখনো হরিরামপুরে নিতে পারি নাই, আর এখন ওর বাপের পেছনে পেছনে তিন নম্বর ছাগলের বাচ্চা হয়ে ঘুরে বেড়ায়!’ তবে পোস্টটি তিনি কাকে উদ্দেশ করে লিখলেন তা জানা যায়নি।

সিংগাইর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. সায়েদুল ইসলাম যুগান্তরকে জানান, সংসদ সদস্য হিসেবে রাজনৈতিক শিষ্টাচারবহির্ভূত কাজ করেছেন তিনি।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের এক প্রবীণ নেতা যিনি টানা সাতবারের নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান এবং একজন মুক্তিযোদ্ধা তাকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এভাবে হেয় করা সমীচীন হয়নি।

সিংগাইর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. সায়েদুল ইসলামসহ একাধিক রাজনৈতিক নেতা সূত্রে জানা গেছে, নতুন বাংলা নতুন বছরের শুরু দিনে শুক্রবার বিকালে হরিরামপুর উপজেলা পরিষদ হল রুমে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মানিকগঞ্জ-২ আসনের আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী শিল্পপতি জাহিদ আহম্মেদ টুলু প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ ও জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা করেন। ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট গোলাম মহিউদ্দিন।

হরিরামপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাইদুর রহমানের সভাপতিত্বে ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সিংগাইর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মাজেদ খান।

এ সময় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সায়েদুল ইসলাম, হরিরামপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আবুল বাসার সবুজ ও হরিরামপুর উপজেলার সব ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, সিংগাইরের সাতজন ইউপি চেয়ারম্যানসহ শতাধিক নেতাকর্মী ওই সভায় অংশ নেন।

অনুষ্ঠানটি যখন চলছিল তখন এমপি মমতাজ তার ফেসবুক আইডিতে ওই পোস্টটি করেন। দলীয় নেতাদের তথ্য সূত্রে শুক্রবার রাত ৭টা ৫৯ মিনিটের সময় এমপি মমতাজের আইডিতেই পোস্টটি ছিল। পরে রাতে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পোস্টটি প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

পোস্টটি নিয়ে রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা বলছেন, এমপি মমতাজ বেগম এই পোস্টটিতে বলধারা ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মাজেদ খানকে ইঙ্গিত করে করেছেন। দীর্ঘ ২৭ বছর সিংগাইর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করা মাজেদ খান গেল ৩০ জুলাই তিন সদস্যের ঘোষিত আওয়ামী লীগের কমিটি থেকে বাদ পড়েন। গত শুক্রবার জাহিদ আহম্মেদ টুলুর কর্মসূচিতে ওই মুক্তিযোদ্ধা নেতা অংশগ্রহণ করায় মমতাজ বেগম এমপি ক্ষুব্ধ হয়ে ফেসবুকে এরকম পোস্ট দেন বলে অনেকেই মন্তব্য করেন।

মমতাজের এ পোস্টটি নিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শহিদুর রহমান শহিদ শুধু ‘টাকা’ শব্দটি লিখেই মন্তব্য শেষ করেন। এছাড়া মো. ফরিদুর রহমান জয় এই পোস্ট নিয়ে মন্তব্য করে লিখেছেন- ‘মীরজাফরদের স্বভাব এমন আপা।

এ প্রসঙ্গে সিংগাইর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বলধারা ইউপি চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মাজেদ খান বলেন, আমাকে নিয়ে একজন সংসদ সদস্যের এ ধরনের কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যে জেলা-উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী ও মুক্তিযোদ্ধারা ক্ষুব্ধ হয়েছেন।

এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট গোলাম মহিউদ্দীন বলেন, তিনি বিষয়টি শুনেছেন ও দেখেছেন।

তিনি বলেন, একজন এমপি হয়ে তার নিজের ফেসবুক আইডিতে একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও ত্যাগী রাজনৈতিক নেতা সম্পর্কে এমন মন্তব্য করে পোস্ট করা ‘ঠিক হয়নি ও ভালো হয়নি’।

এ ব্যাপারে এমপি মমতাজ বেগমের মন্তব্য জানতে তার মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল করার চেষ্টা করেও সেটি বন্ধ পাওয়া গেছে। তবে তার ব্যক্তিগত সহকারী জুয়েলের সঙ্গে কথা হলে তিনি এমপির ফেসবুকে এমন মন্তব্যের কথা শুনেছেন বলে জানান।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments