ফুলবাড়ীতে বিএনপি-ছাত্রলীগ সংঘর্ষ, আহত ২০

0
587

ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে বিএনপি’র বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক উপমন্ত্রী অধ্যক্ষ আসাদুল হাবিব দুলুর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশের সময় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের প্রায় ২০ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেছে।

জানা গেছে, শনিবার ৩০ সেপ্টেম্বর বিকালে পুর্ব ঘোষিত কর্মসূচি উপলক্ষে ফুলবাড়ী উপজেলা বিএনপির নেতাকর্মীরা ফুলবাড়ী উচ্চ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সমবেত হয়। এ সময় উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আহাম্মদ আলী পোদ্দার রতন সেখানে গিয়ে শান্তিপূর্ন ভাবে কর্মসূচি পালনের জন্য বিএনপির নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান। পরক্ষণে উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়ন বিএনপির সমর্থকদের কয়েকটি অটোরিকশা সদরে প্রবেশ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্দেশ্য করে শ্লোগান দিলে উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের সাথে সংঘর্ষ শুরু হয়।

খবর পেয়ে সমাবেশ স্থল থেকে বিএনপির নেতাকর্মীরা লাঠি সোটা নিয়ে উপজেলা সদরের তিনকেনা মোড়ে আসলে উভয় পক্ষের মধ্যে তুমুল সংঘর্ষ বাধে।

সংঘর্ষে উপজেলা ছাত্রলীগর যুগ্ম সম্পাদক সজল পোদ্দার, লোকমান হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক তাহাদ হাসান তুষার, বায়জিদ বোস্তামী বাঁধন এবং উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি লোকমান হোসেন সরকার, উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক রেজাউল ইসলাম রেজা, যুগ্ম আহবায়ক মাসুদ রানা, বিএনপি কর্মী তোতা মিয়া, যুবদল কর্মী রেজাউল, আয়নাল,আলামিন, শফিকুল ইসলামসহ উভয় পক্ষের প্রায় ২০ জন আহত হয়। খবর পেয়ে ফুলবাড়ী থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে উভয় পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পরে উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল দলীয় কার্যালয় থেকে বের করে উপজেলা সদরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে তিনকোনা মোড়ে শান্তি সমাবেশ করে। অন্যদিকে বিকাল সাড়ে ৪ টার দিকে বিএনপির নেতাকর্মীরা মহিলা ডিগ্রি কলেজ ও কদমতলা সড়কে বিক্ষোভ মিছিল শেষে কদমতলা মোড়ে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তব্যে রাখেন উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান মুকুল । এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান মুকুল জানান, আমাদের শান্তিপূর্ন মিছিলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা অতর্কিত হামলা চালায়। এতে আমাদের ১০/১২ জন সক্রীয় নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আহাম্মদ আলী পোদ্দার রতন বলেন, আমি নিজেই ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করি। তারপরও বিএনপির লোকজন আমাদের লোকজনের উপর হামলা চালায়।

ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) প্রাণকৃষ্ণ দেবনাথ জানান, ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

এফএস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here