Saturday, February 24, 2024
Homeস্পটলাইটজায়গা দখলমুক্ত ও নির্যাতনের প্রতিকার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন

জায়গা দখলমুক্ত ও নির্যাতনের প্রতিকার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন

রাজবাড়ী প্রতিনিধি: রাজবাড়ীর সদর উপজেলার খানগঞ্জ ইউনিয়নের হরিহরপুরে জামাল ফকিরের বাড়ির সামনে জেলা পরিষদের লীজকৃত জায়গায় জোর পূর্বক দখল করে প্রাচির ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে চেয়ারম্যান শরিফুর রহমান সোহানেসহ তার ঘনিষ্ঠ সহোযোগিদের বিরুদ্ধে।

জানাগেছে, হরিহরপুরের মৃত আহেদ আলী ফকিরের ছেলে মোঃ জামাল ফকির(৫৭) এর স্ত্রী রকেয়া বেগমের বসত বাড়ির সামনে বেলগাছি রেলস্টেশন টু বেড়িবাঁধের রাস্তর পাশে দাদপুর মৌজার বি.এস ৩ নং খতিয়ান ভূক্ত ১৭ নং দাগের ৪৫’×১২’=৫৪০ বর্গফুট জমি রাজবাড়ী জেলা পরিষদ হতে ২০২১-২০২২ অর্থবছরের জন্য আবাসিক হিসাবে ইজারা গ্রহন করেন।

কিন্তু, প্রতিপক্ষ মোঃ শরিফুর রহমান সোহান(৪০), পিতা মৃত ফজলুর রহমান প্রামানীক এর স্ব-শরীরে উপস্থিত থেকে নেতৃত্বের মাধ্যমে একই ইউনিয়নাধিন মৃত মুন্সী প্রামানীকের ছেলে মোঃ জহিরুল প্রামানীক(৫৮), মৃত লতিফ মিয়ার ছেলে মোঃ টুটুল মিয়া(৫০), মৃত মুইগে শেখের ছেলে মোঃ মতিয়ার শেখ(৪৮), মোকছেদ শেখের ছেলে মোঃ আলামিন শেখ(৩২), কেছমত মন্ডলের ছেলে আনজু মন্ডল(৬৫), মৃত নিজাম উদ্দিন মল্লিকের ছেলে খালিদ হাসান(৩৮) সর্বসাং খোশবাড়ীদ্বয় দাদপুর মৌজার এস.এ -০২ এর ২৬১ নং দাগ থেকে জেলা পরিষদ হতে ৫৪০ বর্গফুট ইজারা নিয়ে তফসিল বর্ণিত জায়গা ব্যাতিত ক্ষমতা ও পেশিশক্তির দাপটে রকেয়া বেগমের বসত বাড়ির সামনে বি.এস ৩ নং খতিয়ান ভূক্ত ১৭ নং দাগে জামাল ফকিরের স্ত্রী রকেয়া বেগমের ইজারার জায়গা বেদখল করেন। প্রতিপক্ষের বেদখলকৃত নিজ জায়গা দখলমুক্ত করার লক্ষে ইটের বাউন্ডারি করতে গেলে সোহান চেয়ারম্যান এর নেতৃত্বে প্রতিপক্ষগং নির্মাণকৃত দেওয়াল গাছের গুলি দিয়ে ধাক্কা দিয়ে ভেঙে ফেলেন ও প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে চলে যান।

গত ২রা মের বিকাল ৩ ঘটিকার জোর পূর্বক দেওয়াল ভেঙাকে কেন্দ্র করে রাজবাড়ী পুলিশ সুপার ও সদর থানা বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী পরিবার।

এ বিষয়ে খানগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শরিফুর রহমান সোহান বলেন, আমার নেতৃত্বে দেওয়াল ভাঙার বিষয়টি মিথ্যা। জেলা পরিষদের সার্ভেয়ার এসে দেওয়াল গাঁথতে নিষেধ করেন ও তারা ভেঙেছেন। আমি উপস্থিত ছিলাম।

জেলা পরিষদের সার্ববেয়ার মোঃ ইমরান জানান, তিনি চেয়ারম্যানের নির্দেশে বেলগাছি ঘটনাস্থলে যান। কিন্তু দেয়াল তিনি ভাঙ্গেন নি।

এফএস

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments