Saturday, April 13, 2024
Homeসারাবিশ্বএই প্রথম প্রকাশ্যে দেখা গেল উত্তর কোরিয়ার নেতার কন্যাকে

এই প্রথম প্রকাশ্যে দেখা গেল উত্তর কোরিয়ার নেতার কন্যাকে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উনকে এই প্রথম প্রকাশ্যে তার মেয়ের সাথে দেখা গেছে। কিম জং উনের যে একটি মেয়ে আছে, তা নিয়ে জল্পনা ছিল অনেক আগে থেকে, তবে এখন তা নিশ্চিতভাবেই জানা গেল। সূত্র : বিবিসি

কিম জং উনের মেয়ের নাম কিম চু-ই বলে মনে করা হয়।

শুক্রবার উত্তর কোরিয়ায় একটি বড় ইন্টারকন্টিনেন্টাল ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের যে অনুষ্ঠান হয়, সেখানে তাকে তার বাবার সাথে দেখা যায়।

এই পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণের সময় তাদের দু’জনকে হাত ধরে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়।

যুক্তরাষ্ট্র এই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার নিন্দা জানিয়েছে।

কিম জং উন হচ্ছেন বিশ্বের সবচেয়ে কঠোর গোপনীয়তায় ঢাকা এক দেশের প্রধান। তার ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে খুব কম তথ্যই জানা যায়।

উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কেসিএনএ কিম জং উন ও তার মেয়ের কয়েকটি ছবি প্রকাশ করেছে। এগুলোতে তাদেরকে হাত ধরাধরি করে দাঁড়িয়ে এবং কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলতে দেখা যায়। তারা ক্ষেপণাস্ত্রটিও পরিদর্শন করেন এবং একটি মঞ্চ থেকে এটির উৎক্ষেপণ দেখেন।

মাইকেল ম্যাডেন একজন উত্তর কোরিয়া বিশেষজ্ঞ, কাজ করেন ওয়াশিংটন ডিসির স্টিমসন সেন্টারে। তার বিশ্বাস কিম চু-ই’র বয়স ১২ হতে ১৩ বছরের মধ্যে।

তিনি বলেন, মেয়ের ছবি প্রকাশ করার মাধ্যমে কিম জং উন হয়তো এরকম একটা বার্তা দিতে চাইছেন যে, ‘তার রক্তের ধারা থেকেই উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতা হস্তান্তরিত হবে চতুর্থ প্রজন্মের কাছে।’

গত সেপ্টেম্বরে উত্তর কোরিয়ার ব্যাপারে খোঁজখবর রাখেন এমন কয়েকজন বিশেষজ্ঞ বলেছিলেন, চু-ইকে দেশটির জাতীয় দিবস উদযাপনের অনুষ্ঠানের একটি ভিডিওতেও দেখা গেছে।

কিন্তু সেটা ছিল জল্পনা এবং উত্তর কোরিয়ার নেতৃত্বও তখন নিশ্চিত করেনি এটি আসলে কিম জং উনের মেয়ে কিনা।

চু-ইর অস্তিত্বের কথা প্রথম জানা যায় ২০১৩ সালে, যখন মার্কিন বাস্কেটবল তারকা ডেনিস রডম্যান এক বিতর্কিত সফরে উত্তর কোরিয়া যান।

রডম্যান বলেছিলেন, তখন তিনি কিম জং উনের পরিবারের সাথে সময় কাটিয়েছেন, সাগর তীরে অবকাশ যাপন করেছেন এবং তাদের ছোট মেয়ে ‘চু-ই’কে কোলে নিয়েছেন।

বিশেষজ্ঞদের ধারণা, কিম জং উনের সন্তানের সংখ্যা হয়তো তিনটি- দুটি মেয়ে এবং একটি ছেলে। এদের মধ্যে চু-ই বয়সে সবার বড়।

তবে উত্তর কোরিয়ার এই নেতা তার পরিবারের ব্যাপারে সাংঘাতিক গোপনীয়তা রক্ষা করেন। এমনকি তার স্ত্রী রি সোল-জুর কথাও মানুষ জানতো না, বিয়ের পরও অনেকদিন তার বিষয়টি গোপন রাখা হয়েছিল।

শুক্রবার উত্তর কোরিয়া যখন এযাবতকালের সবচেয়ে শক্তিশালী ইন্টারকন্টিনেন্টাল ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে, তখন সেই খবরের চাইতে যেন কিম জং উনের যে একটি মেয়ে আছে, সেই খবরটি বিশ্লেষকদের মধ্যে বেশি আগ্রহ তৈরি করেছে।

বিবিসির সিউল সংবাদদাতা জিন ম্যাকেনজি বলেছেন, এর কারণও আছে। উত্তর কোরিয়ার শাসকগোষ্ঠীর ভবিষ্যৎ এবং তাদের পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচি সম্পর্কে এতে অনেক ধারণা পাওয়া যায়। এমন কিছু প্রশ্নও এরই মধ্যে উঠতে শুরু করেছে। যেমন, এর মানে কি এই যে, এই মেয়েটিই কি তাহলে কিম জং উনের পর উত্তর কোরিয়া শাসন করবে? খুবই সম্ভব। উত্তর কোরিয়ায় পরিবারতান্ত্রিক শাসন চলছে বহু দশক ধরে এবং কিম জং উন চাইবেন একদিন তার সন্তানরাই দেশ শাসনের দায়িত্ব নিক।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments